ডার্ক এভিল প্রলাপ

মানুষ বরাবরই বিচিত্র প্রাণি। স্বভাবে বৈচিত্রতা কেবল এখানেই পাওয়া যায়।
হুট করে বদলে যাওয়াটাও তার সেই বৈচিত্রতার অংশ।
মানুষ বদলে যায়।কারণে অকারণে বদলে যায়, বদলে যায় সম্পর্ক। একদিন যার নিঃশ্বাস না শুনলে ঘুম হতোনা, আজ তার নিঃশ্বাসই কেমন বিষময় লাগে। একদিন যাকে বুকে নিতে মন কেমন কাঁদতো, আজ তার স্পর্শ বিরক্তিকর।
এটাই মানব ধর্ম- হুটহাট বদলে যাওয়া।
একদা এইখানটাতে, আমার একটা ঘর ছিল। ভালবাসার সাতকাহনে বাঁধা স্বপ্ন ছিল। সে সব উড়ে গেছে বহু আগে।
অতঃপর, কত কাঙাল এলো ভালবাসার দাবী নিয়ে আমার দুয়ারে! ওরা ছদ্মবেশী, ওরা চায় আমার পুরোটা! ওরা ভালবাসেনা ওরা ভোগ চায়, ওরা ভাগ চায়। ওরা আমায় চায়,  আমার যাতনা চায়না।
একদিন ওরাও চলে যাবে। আমি জানি। মন তৃপ্ত হলেই ওরা বিদায় নেবে।
মানুষ দেখেছি নানান রুপে। বিষধর সাপ, কখনো নেঁউড়ে কুকুর, কখনো জলজ ব্যাঙাচির বেশে।
আমি স্বতন্ত্র। আমি লাভার অগ্নুৎপাতের মত বুঁদবুঁদে ফুটন্ত। প্রয়োজনে নিজে গলে পড়ি, আমায় গলায় সাধ্য কার?
সকল যাতনার উর্ধ্বে গিয়ে আমি নির্ভীক জলছায়া গুনে গুনে জীবনের হিসেব কষি। আমায় হারায় সাধ্য কার?
মানুষ বহুরুপী; মানুষ বিচিত্র জেনেছি বহুদিন আগে।